ক্রায়োসার্জারি কী ? ক্রায়োসার্জারির ব্যবহার, সুবিধা ও অসুবিধা

Cryosurgery

এই পাঠ শেষে যা যা শিখতে পারবে-

১। ক্রায়োসার্জারি চিকিৎসা পদ্ধতি ব্যাখ্যা করতে পারবে।

২। ক্রায়োসার্জারির সুবিধা ও অসুবিধা বর্ণনা করতে পারবে।

 

Go for English Version

 

ক্রায়োসার্জারি কী ? 

গ্রিক শব্দ ক্রাউস(kruos) থেকে ক্রায়ো (Cryo) শব্দটি এসেছে যার অর্থ বরফের মতো ঠাণ্ডা এবং ‘সার্জারি’ অর্থ শৈল্য চিকিৎসা। অর্থাৎ ক্রায়োসার্জারি হলো এক ধরণের চিকিৎসা পদ্ধতি যাতে অত্যধিক শীতল তাপমাত্রা প্রয়োগ করে শরীরের অস্বাভাবিক বা রোগাক্রান্ত কোষগুলোকে ধ্বংস করা হয়। ক্রায়োসার্জারিকে অনেক সময় ক্রায়োথেরাপি বা ক্রায়োবায়োলেশনও  বলা হয়।

Cryosurgery

 

ক্রায়োজনিক এজেন্ট কী ?

এই পদ্ধতিতে রোগাক্রান্ত অংশ হিমায়িত করার জন্য নিমোক্ত ক্রায়োজনিক এজেন্ট বা গ্যাসগুলো ব্যবহার করা হয়-

  • তরল নাইট্রোজেন
  • তরল আর্গন গ্যাস
  • তরল কার্বন-ডাই-অক্সাইড গ্যাস
  • ডাই মিথাইল ইথাইল প্রোপ্রেন ইত্যাদি।

 

ক্রায়োপ্রোব বলতে কি বুঝায় ?

 

HSC ICT প্রথম অধ্যায়ের গুরুত্বপূর্ণ টপিকসমূহ

 

ব্যবহার পদ্ধতিঃ

  • তরল নাইট্রোজেনকে স্প্রে করার জন্য ক্রয়োগান ব্যবহার করা হয়।
  • বহিরাগত টিউমারের ক্যানসার কোষে একটি সুচ, তুলা বা স্প্রে করা যন্ত্র দিয়ে সরাসরি তরল নাইট্রোজেন প্রয়োগ করা হয়।
  • অভ্যন্তরীণ টিউমারের ক্ষেত্রে, ক্রয়োপ্রোব (Cryoprobe) নামক একটি ফাঁপা উপকরণ দিয়ে তরল নাইট্রোজেন বা ক্রায়োজনিক এজেন্ট টিউমারের সংস্পর্শে সঞ্চালন করা হয়। এ ক্ষেত্রে ডাক্তাররা আলট্রাসাউন্ড বা এমআরআই (MRI) ব্যবহার করেন।
  • ক্রায়োপ্রোব টিউমারকে নিয়ন্ত্রণ করতে এবং জমাটবদ্ধ কোষ নিরীক্ষণ করতে যাতে চারপাশের সূক্ষ্ম টিস্যুগুলোর ক্ষতি না হয়, সেদিকে খেয়াল রাখা হয়।

Cryosurgery

 

ক্রায়োসার্জারি যেভাবে কাজ করে

এই পদ্ধতিতে প্রথমে আলট্রা সাউন্ড বা এমআরআই(MRI) যন্ত্র ব্যবহার করে রোগাক্রান্ত কোষ বা টিস্যু চিহ্নিত করা হয়। তারপর ক্রায়োপ্রোব বা ইমেজিং যন্ত্রের সাহায্যে রোগাক্রান্ত কোষে বিভিন্ন ক্রায়োজনিক এজেন্ট যেমন- তরল আর্গন গ্যাস প্রয়োগ করা হয়। ফলে কোষের তাপমাত্রা ১০-১২ সেকেন্ডের মধ্যে -১২০ থেকে -১৬৫ ডিগ্রি সেলসিয়াসে নেমে আসে। তাপমাত্রা অত্যাধিক হ্রাসের কারণে কোষের পানি জমাটবদ্ধ হয়ে ঐ টিস্যুটি বরফপিণ্ডে পরিণত হয়। বরফপিণ্ডে রক্ত ও অক্সিজেন সরবরাহ বন্ধের কারণে টিস্যুটির ক্ষয় সাধিত হয়। পূনরায় ইমেজিং যন্ত্রের সাহায্যে কোষের ভিতরে হিলিয়াম গ্যাস নিঃসরণের মাধ্যমে তাপমাত্রা ২০oc থেকে ৪০oc এ উঠানো হয়। তখন জমাটবদ্ধ কোষ বা টিস্যুটির বরফ গলে যায় এবং কোষ বা টিস্যুটি ধ্বংস হয়ে যায়।

ভিডিও লেকচার পেতে YouTube চ্যানেলটিতে Subscribe করো। 

HSC ICT প্রথম অধ্যায়ের নোট পেতে ক্লিক করো।

ICT সম্পর্কিত যেকোন প্রশ্নের উত্তর জানতে Facebook গ্রুপে যুক্ত হও।

 

ক্রায়োসার্জারি ব্যবহার

  • ত্বকের ছোট টিউমার , তিল , আচিল , মেছতা , ত্বকের ক্যান্সার চিকিৎসায় ক্রায়োসার্জারি ব্যবহার করা হয় ৷
  • ক্রায়োসার্জারি দ্বারা অভ্যন্তরীণ কিছু রোগ যেমন – যকৃত ক্যান্সার , প্রস্টেট ক্যান্সার , ফুসফুস ক্যান্সার , মুখের ক্যান্সার , গ্রীবাদেশীয় গোলযোগ , পাইলস ক্যান্সার , স্তন ক্যান্সার ইত্যাদির চিকিৎসাও করা হয় ৷
  • মানবদেহের কোষকলার কোমল অবস্থা Planter Fasciitis এবং Fibroma ক্রায়োসার্জারির মাধ্যমে চিকিৎসা করা হয় ৷

 

ক্রায়োসার্জারির সুবিধা ও অসুবিধা

 

ক্রায়োসার্জারির সুবিধা

  • ক্রায়োসার্জারির সুবিধা হলো এটি বারবার করা সম্ভব।
  • এটি সাধারণ সার্জারির চেয়ে কম বেদনাদায়ক।
  • ক্রায়োসার্জারি অন্যান্য চিকিৎসার চেয়ে কম ব্যয়বহুল।
  • এই পদ্ধতিতে তাপমাত্রা যখন হিমাঙ্কের নিচে নামানো হয় তখন সংশ্লিষ্ট স্থান হতে রক্ত সরে যায় এবং রক্তনালিগুলো সংকুচিত হয় ফলে রক্তপাত হয় না বললেই চলে, হলেও খুব কম।
  • বহুল প্রচলিত কেমোথেরাপি বা রেডিওথেরাপি এবং বিভিন্ন অস্ত্রোপচারের চেয়ে এই পদ্ধতির পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া কম।

 

ক্রায়োসার্জারির অসুবিধা

  • এই পদ্ধতিতে রোগাক্রান্ত কোষ বা টিস্যু শনাক্ত করার সময় যদি সঠিকভাবে অবস্থান শনাক্ত করা না যায় এবং ক্রায়োসার্জারি ব্যবহার করা হয় তাহলে সুস্থ কোষের ক্ষতি হতে পারে।
  • এর কিছু পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া রয়েছে, তবে আশার কথা পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া ক্ষণস্থায়ী।
  • ত্বকের ক্যান্সারের চিকিৎসায় ক্রায়োসার্জারির ফলে ত্বক ফুলে যায়, স্নায়ু ক্ষতিগ্রস্থ হয়, সংবেদনশীলতা হ্রাস পায়।
  • পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া তাদের ক্ষেত্রেই হয় যাদের প্রস্টেট গ্রন্থিগত সমস্যা রয়েছে।

 

HSC ICT এর সকল অধ্যায়

 

পাঠ মূল্যায়ন- 

জ্ঞানমূলক প্রশ্নসমূহঃ

ক। ক্রায়োসার্জারি কী?

ক। ক্রায়োথেরাপি কী?

ক। মহাকাশ অভিযান কী?

Go for answer

 

অনুধাবনমূলক প্রশ্নসমূহঃ

খ। “ক্রায়োসার্জারির মাধ্যমে রক্তপাতহীন অপারেশন সম্ভব” – ব্যাখ্যা কর।

খ। বহিঃত্বকে কোন সার্জারি ক্রমশ জনপ্রিয় হচ্ছে? ব্যাখ্যা কর।

খ। নিম্ন তাপমাত্রায় অসুস্থ টিস্যুর কীভাবে ধ্বংস করা যায়? – ব্যাখ্যা কর।

খ। নিম্ন তাপমাত্রায় চিকিৎসা পদ্ধতি ব্যাখ্যা কর।

খ। “শীতলীকরণ প্রক্রিয়ায় চিকিৎসা দেওয়া সম্ভব”- ব্যাখ্যা কর।

Go for Answer

 

সৃজনশীল প্রশ্নসমূহঃ

উদ্দীপকটি পড় এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাওঃ 

মামুনের হাতে একটি টিউমার হওয়ায় সে ডাঃ রিপনের শরণাপন্ন হয়। তার পরামর্শ অনুযায়ী মামুন নির্দিষ্ট তারিখে অপারেশন থিয়েটারে উপস্থিত হলেন। ডাঃ রিপন অল্প সময়ের মধ্যে একটি বিশেষ পদ্ধতিতে অত্যাধিক নিম্ন তাপমাত্রায় টিউমারের অপারেশন সম্পন্ন করলেন।

গ) ডাক্তার মামুনের চিকিৎসায় কোন প্রযুক্তি ব্যবহার করেছেন? ব্যাখ্যা কর।

উদ্দীপকটি পড় এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাওঃ  

লিজা ত্বকের সমস্যার জন্য ডাক্তারের নিকট গেল। ডাক্তার তাকে পরীক্ষা নিরীক্ষা করে নিম্ন তাপমাত্রা প্রয়োগ করে চিকিৎসা করলেন।

গ) উদ্দীপকে লিজার চিকিৎসার পদ্ধতি ব্যাখ্যা কর।

উদ্দীপকটি পড় এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাওঃ  

ডা. নিলয় ব্রেইন ক্যান্সার নিরাময়ে শীতল আর্গন গ্যাস ব্যবহারের চিকিৎসাপদ্ধতি প্রয়োগের জন্য অভিজ্ঞতা লাভের উদ্দেশ্যে একটি সিমুলেটেড অপারেশন সম্পন্ন করেন।

গ) ডা. নিলয় এর চিকিৎসা পদ্ধতি কি ব্যাখ্যা কর ।

উদ্দীপকটি পড় এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাওঃ  

আইসিটি নির্ভর জ্ঞান ও প্রযুক্তি মানুষকে নানা বিষয়ে সমৃদ্ধির পথে এগিয়ে নিচ্ছে। হাসান আইসিটি বিষয়ে পড়াশোনা করে জানতে পারলো কোনো প্রকার অস্ত্রোপচার ছাড়া এক শৈল চিকিৎসা পদ্ধতি সম্ভব। পরবর্তীতে হাসান আইসিটি নির্ভর জীব বৈচিত্র সৃষ্টির প্রযুক্তি বিষয়ে জ্ঞান লাভ করে খুবই আনন্দিত হলো ।

গ) হাসানের চিকিৎসা পদ্ধতি সনাক্ত করে ব্যাখ্যা কর।

 

বহুনির্বাচনি প্রশ্নসমূহঃ

১। কোনটি ‘Cryo’ শব্দের অর্থ প্রকাশ করে?

ক) খুবই গরম      খ) চিকিৎসা      গ) অসুস্থতা      ঘ) বরফের মতো ঠান্ডা

২। ‘Surgery’ শব্দের অর্থ কি?

ক) হাতের কাজ         খ) চিকিৎসা করা      গ) কেটে ফেলা       ঘ) নিখুঁত কাজ

৩। অত্যাধিক শীতল তাপমাত্রা প্রয়োগ করে অস্বাভাবিক বা রোগাক্রান্ত টিস্যুকে ধ্বংস করার কৌশলকে কী বলে ?

ক) ক্রোমোসার্জারি        খ) ক্রায়োসার্জারি       গ) হোমোসার্জারি        ঘ) বায়োসার্জারি

৪। নিচের কোন রোগের চিকিৎসায় ক্রায়োসার্জারি ব্যবহৃত হয়?

ক) চর্মরোগ      খ) মস্তিষ্কের রোগ       গ) পেটের রোগ       ঘ) দন্তরোগ

৫। কোন ধরণের ক্যান্সারের চিকিৎসায় ক্রায়োসার্জারি ব্যবহৃত হয়?

i. স্তন      ii. প্রোস্টেট      iii. লিভার

নিচের কোনটি সঠিক?

ক) i ও ii      খ) i ও iii      গ) ii ও iii      ঘ) i, ii ও iii

 

এই অধ্যায়ের সকল MCQ দেখতে ক্লিক করো 

 


Written by,

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published.